|

সারাদেশে বজ্রপাতে ২১ জনের মৃত্যু

প্রকাশিতঃ ৯:৫৭ অপরাহ্ণ | মে ০৯, ২০১৮

ডেস্ক রিপোর্ট, ভালুকার খবর:  দেশের বিভিন্ন জেলায় বজ্রপাতের ঘটনায় অন্তত ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এসব ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২৭ জন।

এর মধ্যে হবিগঞ্জে ছয়জন, মানিকগঞ্জে দুইজন, সুনামগঞ্জে দুইজন, রাজশাহীতে দুইজন, কিশোরগঞ্জে দুইজন, নীলফামারীতে দুইজন, সোনারগাঁওয়ে একজন, জামালপুরে একজন, গাইবান্ধায় একজন, ময়মনসিংহে একজন, সিরাজগঞ্জে একজন মারা গেছেন। এছাড়াও, ঠাকুরগাঁওয়ে বজ্রপাতে আগুন ধরে একটি পাটকলের গুদাম পুড়ে গেছে।

আজ বুধবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত প্রবল ঝড়বৃষ্টির সময় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

গত বছর বজ্রপাতে মৃত্যু হয় প্রায় ৩৭৯ জনের! আর ২০১০ সালের পর গত সাত বছরে মৃতের সংখ্যা দুই হাজারেরও বেশি।

গত দুই মাসে বজ্রপাতে শতাধিক মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। এর মধ্যে ২৯ এপ্রিল ১৭ জন, ৩০ এপ্রিল ১৫ জন, ২ মে ১১ জন, ৭ মে ১১ জনের মৃত্যু উল্লেখ যোগ্য।

২০১০ সালের পর দেশে বজ্রপাত বেড়েছে আশঙ্কাজনক হারে। ২০১৬ সালে পর পর দুদিনে বজ্রপাতে ৮১ জনের প্রাণহানি ঘটে। এরপরই বজ্রপাতকে দুর্যোগ হিসেবে ঘোষণা করে মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি বজ্রপাত থেকে সুরক্ষা পেতে স্থানীয় ধারণাকে ভিত্তি হিসেবে গ্রহণ করে সারা দেশে ১০ লাখ তালগাছ রোপণের এক অভিনব কর্মসূচি নিয়েছে সরকার।

হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জে হাওরে ধান কাটার সময় বজ্রপাতে ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এতে আরও ছয়জন আহত হয়েছেন।

মৃতরা হলেন- দাইপুর গ্রামের বসন্ত দাশের ছেলে স্বপন দাশ (৩৫), সিরাজগঞ্জ জেলার দত্তকান্দি এলাকার বাসিন্দা জয়নাল উদ্দিন (৬০), নবীগঞ্জ উপজেলার বৈলাকীপুর গ্রামের নারায়ণ পাল (৪০), আমড়াখাই গ্রামের হাবিব উল্লাহর ছেলে আবু তালিব (২৫), লাখাই উপজেলার তেঘরিয়ায় সফি মিয়া (৫৫) ও মাধবপুর উপজেলার রাম কুমার সরকারের ছেলে জোহর লাল সরকার (১৮)। এ সময় আহত হন আরও ছয়জন। তাদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে

জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অফিসের বজ্রপাতের তথ্য সংগ্রহের দায়িত্বরত কর্মী আব্দুল নূর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মানিকগঞ্জ: মানিকগঞ্জের দৌলতপুরের বাঁচামারা ও তালুকনগর গ্রামে বজ্রপাতে এক স্কুলছাত্রসহ দুজন নিহত হয়েছে। এই ঘটনায় আহত হয়েছে ১০ শিক্ষার্থী।

বুধবার দুপুরে এসব ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- তালুকনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র সাইফুল ইসলাম অন্তর (১২) এবং বাঁচামারা ইউনিয়নের হাসাদিয়া গ্রামের হাফেজ শেখের ছেলে কৃষক ইয়াকুব আলী শেখ (৪৮)।

তালুকনগর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আমিনুর রহমান জানান, দুপুর পৌনে দুইটার দিকে স্কুলের টিফিন চলাকালীন সময়ে শিক্ষার্থী মাঠে খেলা করছিল। এ সময় বজ্রপাত হলে বিভিন্ন শ্রেণির ১০ জন শিক্ষার্থী আহত হন। তাদেরকে দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে সাইফুল ইসলাম অন্তরকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।

আহতদের মধ্যে ৮ জনকে দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

অপর দুর্ঘটনাটি ঘটে বাঁচামারা ইউনিয়ন হাসাদিয়া গ্রামে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মো. আব্দুল লতিফ জানান, ইয়াকুব আলী ধানক্ষেতে কাজ করছিলেন। এ সময় তার ওপর বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

সুনামগঞ্জ: আজ দুপুরে সুনামগঞ্জের শাল্লা ও ধর্মপাশা উপজেলায় বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে।

নিহতরা হলেন- শাল্লা উপজেলার আটগাঁও ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামের যুক্ত মিয়ার ছেলে আরমগীর হোসেন ও ধর্মপাশা উপজেলার দূর্বাকান্দা গ্রামের রহিম উদ্দিনের ছেলে উজ্জল মিয়া (১৫)।

স্থানীয়রা জানান, শাল্লা উপজেলার আটগাঁও ইউনিয়নের মাচতুলী হাওর থেকে ধান কেটে বেলা ১টার সময় ট্রলি দিয়ে বাড়ি নিয়ে ফিরছিলেন আরমগীর হোসেন। পথে বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

অন্য দিকে জেলার ধর্মপাশা উপজেলার কালনী হাওরে ধান কাটার সময় বজ্রপাতে নিহত হন উজ্জল মিয়া (১৫)।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার বরকত উল্লাহ খানঁ।

রাজশাহী: রাজশাহীতে বজ্রপাতে এক কলেজছাত্রসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। সকালে জেলার তানোর উপজেলার দুবইল ও বাতাসপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আরও দুই কৃষক আহত হয়েছেন। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

মৃত দুজন হলেন- বাতাসপুর গ্রামের লোকমান আলীর ছেলে আনসার আলী (৪০) ও দুবইল নামোপাড়া গ্রামের মো. শামসুদ্দিনের ছেলে সোহাগ আলী (১৮)। আহত দুজন হলেন- বাতাসপুর গ্রামের অনিল সাহার ছেলে আনন্দ সাহা (৩৫) ও হিরেন সাহার ছেলে লিটন সাহা (৩০)।

দুবইল মাঠে জমিতে সেচ দিতে গিয়ে বজ্রপাতে মৃত্যু হয় কলেজছাত্র সোহাগ আলীর।

তানোর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

ওসি জানান, এ ঘটনায় থানায় দুটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। পরিবারের সদস্যদের মরদেহ দাফনের অনুমতি দেয়া হয়েছে।

কিশোরগঞ্জ: কিশোরগঞ্জের নিকলী ও পাকুন্দিয়া উপজেলায় বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- নিকলী উপজেলার ছাতিরচর ইউনিয়নের পরিষদপাড়া গ্রামের শাহ জালাল (২৪) ও পাকুন্দিয়া উপজেলার সুখিয়া ইউনিয়ন পরিষদের আশুতিয়া গ্রামে দিপালী রানী বর্মণ (৩৫)।

নিকলী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাছির উদ্দিন ভূইয়া ও পাকুন্দিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম মজুমদার দুইজনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নীলফামারী: বজ্রপাতে নীলফামারীর জলঢাকায় দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার সকালে জেলাজুড়ে ঝড়ো হাওয়া ও শিলাবৃষ্টির সময় বজ্রপাত তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন- উপজেলার বালাগ্রাম ইউনিয়নের শালনগ্রামের আসমা বেগম (৫০) ও কাঁঠালি ইউনিয়নের উত্তর দেশীবাই গ্রামের নূর আমিন (৪৫)।

বালাগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম লিপন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নারায়ণগঞ্জ: জেলার সোনারগাঁয়ে কুলফি আক্তার নামে আট বছরের এক স্কুলছাত্রী নিহত হয়েছে। বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের তিলাব গ্রামে বজ্রপাতে এ নিহতের ঘটনা ঘটে।

নিহত কুলফি আক্তার জামপুর তিলাব গ্রামের শাহ কামালের মেয়ে। সে স্থানীয় তিলাব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী। বজ্রপাতের সময় সে বাড়ির পাশে একটি তেঁতুল গাছের নিচে খেলাধুলা করছিল। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন জামপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হা-মীম শিকদার শিপলু।

জামালপুর: জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার চর আমখাওয়া ইউনিয়নের মৌলভীর চরে বজ্রপাতের শব্দে হাবিবুর রহমান (৫৬) নামের একজন কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার সকালে বৃষ্টির মধ্যে মাঠে কাজ করার সময় এই মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

নিহতের স্বজনরা জানান, হাবিবুর রহমান বুধবার সকালে অন্যান্য কৃষি শ্রমিকদের সাথে বাড়ির কাছেই ধান কাটতে যান। সকাল নয়টার দিকে পাশই বজ্রপাতের প্রচণ্ড শব্দে তিনি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় সানন্দবাড়ী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এবং পরে তাকে পার্শ্ববর্তী কুড়িগ্রাম জেলার রাজিবপুর উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গাইবান্ধা: গাইবান্ধা ফুলছড়িতে ধানক্ষেতে বজ্রপাতে মহর আলী নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।

বুধবার বেলা ১২টায় উপজেলার উদাখালী ইউনিয়নের ছালুয়া গ্রামের একটি ধানক্ষেতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মহর আলী একই উপজেলার উরিয়া ইউনিয়নের কাবিলপুর গ্রামের মৃত আব্দুল রশিদ মিয়ার ছেলে।

ফুলছড়ি থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বেলাল হোসেন ঢাকাটাইমসকে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জমিতে ধান কাটতে গিয়ে মহর আলী নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় বজ্রপাতে আলাল উদ্দিন নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া ময়মনসিংহের পৃথক স্থানে বজ্রপাতে আরও ৮ জন আহত হয়েছেন।

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের কাজিপুর বজ্রপাতে সমতুল্লাহ (৫০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় শাকিল মিয়া (১৫) নামে এক স্কুলছাত্র আহত হয়েছে।

ঠাকুরগাঁও: বজ্রপাতে মৃত্যুর ঘটনা ঘটলেও ঠাকুরগাঁও শহরের সেনুয়া এলাকায় বজ্রপাতে সুপ্রিয় পাটকলের গুদামে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

বুধবার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সুপ্রিয় জুট মিলের মালিক বাবলু রহমান জানান, সকাল ৭ টার দিকে ঝড়-বৃষ্টির সময় গুদামের বাঁশের বৈদ্যুতিক খুঁটিতে বজ্রপাত হয়। এতে আগুন ধরে পাটসহ অন্যান্য মালামাল পুড়ে যায়। এছাড়াও বাতাসে গোডাউনটি উল্টে যায়।

খবর পেয়ে ঠাকুরগাঁও ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। তবে প্রাথমিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরুপণ করা সম্ভব না হলেও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করছেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email