|

নেত্রকোনায় কৃষক হত্যায় চারজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

প্রকাশিতঃ ১২:০২ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ০২, ২০১৮

ডেস্ক রিপোর্ট, ভালুকার খবর: নেত্রকোনায় কৃষক আব্দুছ ছাত্তারকে (৪৫) কুপিয়ে হত্যার দায়ে চারজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে প্রত্যেককে দুই লাখ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও দুই বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

নেত্রকোনা জেলা ও দায়রা জজ কে এম রাশেদুজ্জামান রাজা সোমবার দুপুরে জনাকীর্ণ আদালতে আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- আলমপুর পলাশতলা গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে মো. খোরশেদ (৪০), মো. হাফিজ উদ্দিনের ছেলে নিজাম উদ্দিন(৩৫) ও হাসিম উদ্দিন আবুনী (২৫) এবং মো. রাশিদের ছেলে আলাল (২২)।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণীতে জানা যায়, নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার বৈরাটী ইউনিয়নের আলমপুর পলাশতলা গ্রামের শহর আলীর ছেলে আব্দুছ ছাত্তারের সঙ্গে একই গ্রামের মৃত শেখ আমিরের ছেলে মো. হাফিজ উদ্দিনের (৫৫) জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ও মামলা মোকদ্দমা চলে আসছিল। এরই জের ধরে ২০১৪ সালের ১৪ আগস্ট সকাল পৌনে ৯টার দিকে আব্দুছ ছাত্তার আদালতে সাক্ষী দিতে আসার পথে ভাগবুর ব্রিজের কাছে আসা মাত্রই পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা আসামিরা তাকে রামদা দিয়ে কুপিয়ে ঘটনাস্থলেই হত্যা করে।

এ ব্যাপারে নিহতের ছেলে মো. উজ্জল মিয়া (২২) বাদী হয়ে হাফিজউদিনসহ ১২ জনকে আসামি করে ১৫ আগস্ট পূর্বধলা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পুলিশ দীর্ঘ তদন্ত শেষে ২০১৫ সালের ১৬ জুন সকল আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। বিজ্ঞ বিচারক ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে ৪ আসামির বিরুদ্ধে অপরাধ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আজ এ রায় দেন।

মামলার অপর ৮ আসামির বিরুদ্ধে অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদেরকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত। খালাসপ্রাপ্তরা হলেন- হাফিজ উদ্দিন, আজিম উদ্দিন, রাশিদ, আল আমিন, বিল্লাল হোসেন, ফিরোজা বেগম, জুবেদা খাতুন ও দিলোয়ারা খাতুন।

রাষ্ট্রপক্ষে পিপি ইফতেখার উদ্দিন আহাম্মদ মাসুদ এবং আসামিপক্ষে অ্যাডভোকেট মানবেন্দ্র বিশ্বাস উজ্জল মামলাটি পরিচালনা করেন।

Print Friendly, PDF & Email