|

ভালুকায় একজনের মুক্তিযোদ্ধা সনদ দিয়ে অন্যজন গেজেট ভূক্ত হওয়ার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিতঃ ৪:৩০ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ১৫, ২০২০

আনোয়ার হোসেন তরফদার, ভালুকার খবর: ময়মনসিংহের ভালুকায় প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার সনদ ব্যবহার করে অন্যজন গেজেট ভূক্ত হওয়ার অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছে এক ভুক্তভুগী পরিবার। রোববার সকালে পৌরসভার ‘হ্যালো ভালুকা’ কার্যালয়ে ওই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপজেলার ডাকাতিয়া ইউনিয়নের চানপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মৃত ছোহরাব আলী একজন ভারতীয় প্রশিক্ষন প্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা বলে দাবী করেন তাঁর স্ত্রী ফজিলা খাতুন(৬০)। ভারতীয় তালিকা দেখলেই তার প্রমান পাওয়া যাবে বলেও জানান তিনি।

তিনি লিখিত বক্তব্যে আরও বলেন, ‘সরকার যাচাই বাছাই করে মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা করার পূর্বেই তাঁর স্বামী মৃত্যুবরণ করেন। স্বামীর মৃত্যুর পর স্বামীর চাচাত ভাই খলিল মিয়া সরকারি গেজেটে নাম অন্তর্ভূক্ত করে আনার কথা বলে সাত হাজার টাকা সহ মুক্তিযোদ্ধার সনদপত্র নিয়ে যায়। পরে বেশ কিছুদিন পর খলিল মিয়া জানান ছোহরাব আলীর নাম গেজেট ভূক্ত করতে পারে নাই। পরে টাকা এবং সনদপত্র ফেরৎ চাইলে সে নানা ধরনের টালবাহনা শুরু করে। কিছুদিন পর আমি জানতে পারি খলিল মিয়া ঐ সনদপত্র ব্যবহার করে তার নিজ নামে গেজেট নং-৪৮০৮ অন্তর্ভূক্ত করে সঞ্চয়ী হিসাব নং- ৩৩০৪৩০১০৪১৮৪৫ সোনালী ব্যাংক, ভালুকা শাখা হতে ভাতা উত্তোলন করছে। প্রশাসনের কাছে আমি এবং আমার পরিবারের সদস্যরা ওই প্রতারকের এহেন গর্হিত অপরাধের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তির দাবী জানাচ্ছি। এবং প্রকৃত বীর মুক্তিযোদ্ধা ছোহরাব আলীর নাম গেজেটে অন্তর্ভূক্ত করার জন্য কতৃপক্ষের কাছে বিনীত অনুরোধ জানাচ্ছি।’

এ ব্যাপারে প্রতিকার চেয়ে ভালুকা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভূক্তভুগী পরিবারটি।

Print Friendly, PDF & Email